আবার বাড়বে তাপমাত্রা

আজ সোমবার (৫ এপ্রিল) তাপমাত্রা কম থাকলেও কাল থেকেই আবার বাড়বে। আগামী দুদিনের মধ্যে আবারও তাপপ্রবাহের দেখা পাওয়া যাবে। তবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দিকে জায়গায় ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, উত্তর আন্দামান সাগর ও এর আশেপাশের এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে। পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও এর আশেপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। এই লঘুচাপের প্রভাবে , সিলেট, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগের দুই

যেসব বিভাগে আজও কালবৈশাখীর শঙ্কা

দেশের চার বিভাগে আজও কালবৈশাখীর ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের ১০ অঞ্চলে বয়ে যাওয়া হালকা থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সোমবার সকাল ৯টা পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। তাপপ্রবাহের বিষয়ে বলা হয়েছে, সীতাকুণ্ড ও রাঙামাটি অঞ্চল সমূহের ওপর

শনিবার কালবৈশাখীর পূর্বাভাস

চৈত্রের শুরুতেই মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ৩৯ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া দেশের ১৩টি অঞ্চল বাদে সারাদেশের তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি ও তার উপরে রয়েছে। চলছে মৌসুমের প্রথম তাপদাহ। আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) পর্যন্ত সারাদেশে চলতে পারে এই তাপদাহ। আগামী দুইদিন আরো বাড়বে তাপমাত্রা। এরপর তাপমাত্রা কমে বৃষ্টিসহ কালবৈশাখী ঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস গণমাধ্যমকে জানান, আগামী ২৫ মার্চ পর্যন্ত তাপপ্রবাহ থাকতে পারে। এরপর বিশেষ করে ২৭,

দুইদিনে তাপপাত্রায় পরিবর্তন আসছে

আগামী দুইদিনে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রায় পরিবর্তন আসছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। শুক্রবার রাতে অধিদফতরের এক পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে। পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এজন্য সারাদেশের আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা থাকার পাশাপাশি আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। এছাড়া সারাদেশের দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। ঢাকার পূর্বাভাসে বলা হয়, পশ্চিম/দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬ থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস

পাঁচ বিভাগে বজ্রসহ বৃষ্টির শঙ্কা

দেশের এই ৫ বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। শনিবার (১৩ মার্চ) সকাল ৯টা পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও সিলেট-এই ৫ বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যান্য অঞ্চলে আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং রাতের

দেশের যেসব অঞ্চলে আসছে তুমুল গতিতে ঝড়-বজ্রবৃষ্টি

দেশের চারটি অঞ্চলে অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বজ্রবৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। আবহাওয়া অফিসের এক বিজ্ঞপ্তিতে ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শুক্রবার সন্ধ্যায় ৬ টায় পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগারে অবস্থান করছে। এতে কুমিল্লা, নোয়াখালী, সিলেট, ময়মনসিংহ বিভাগের দুই এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি, এমনকি বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এতে আরো বলা হয়,

আগামী ২ দিনে বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা

সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। ৬ ও ৭ মার্চ বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে। তার পরের পাঁচ দিনে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। শুক্রবার (৫ মার্চ) সকালে এসব তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের

আসছে কালবৈশাখী ঝড়, শিলাবৃষ্টিরও পূর্ভাবাস

চলতি মাসেই তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠতে পারে। সেইসঙ্গে বজ্র ও শিলাবৃষ্টিসহ মাঝারি থেকে তীব্র কালবৈশাখী ঝড়ও বয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। সোমবার (০১ মার্চ) আবহাওয়া অধিদফতর থেকে মার্চ মাসের দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। পূর্বাভাসে বলা হয়, মার্চে দেশে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। এ মাসে দেশের উত্তর, উত্তর-পশ্চিম ও মধ্যাঞ্চলে এক থেকে দুইদিন বজ্র ও শিলাবৃষ্টিসহ মাঝারি বা তীব্র কালবৈশাখী ঝড় এবং দেশের অন্যত্র দুই থেকে তিনদিন

আজ বৃষ্টি হতে পারে দুই বিভাগে

অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। তবে খুলনা ও রাজশাহী বিভাগের দু-এক জায়গায় হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। বুধবার (১৭ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। পূর্বাভাসে আরও বলা হয়েছে, শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। সারাদেশে আজ রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। তার পরের তিন

পরবর্তী তিনদিনের পূর্বাভাসে যা জানালো আবহাওয়া অফিস

সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এছাড়া শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারী ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আজ ভোর ৫টা থেকে পরবর্তী ৫ থেকে ৬ ঘণ্টা পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকায় মাঝারী থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে, ফলে দৃষ্টিসীমা ৮০০ মিটার বা আরো কম হতে পারে। এসব এলাকায় নৌযানসমূহকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে কিন্তু কোনো সংকেত দেখাতে হবে না। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায়