সফলতা পেতে জে’নে রাখুন বিল গেটসের পরামর্শ!

মানুষ সফল ব্য’ক্তিদের পরাম’র্শ শুনতে চায়, ব্য’র্থদের নয়। পৃথিবীর সফলদের তালিকায় সব থেকে যিনি এগিয়ে থাকবেন তিনি বিল গেটস। মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের নাম শোনেননি এমন হয়তো কাউকে পাওয়া যাবে না। র্দীঘ ১৩ বছর তিনি পৃথিবীর সর্বো’চ্চ ধনী ব্য’ক্তি ছিলেন। বিল গেটস কিভাবে সাফল্যের সিঁড়ি বেয়ে আজ এ পর্যন্ত এসেছেন, সে তথ্য তিনি বিভিন্ন সময় গণমাধ্যমকে দিয়েছেন নানাভাবে। সফলতা পেতে ক্যাম্পাসলাইভের পাঠকদের জন্য তুলে ধ’রা হল বিল গেটসের গরুত্বপূর্ণ কিছু পরাম’র্শ:

প্রতিদিন নিজেকে সেরা উপহার দিতে হবে
আপনি যা করবেন সেটাই আপনার বড় উপহার। সুতরাং এমন কিছু করবেন যেন ব্য’র্থ হতে না হয় এবং আপনার করা কাজটি আপনার কাছে সব থেকে বড় উপহার হয়ে দাঁড়ায়।

যত দ্রুত সম্ভব শুরু করুন
কোনো চিন্তা-ভাবনা কিংবা কোনো কাজ কারও জন্য ফে’লে রাখবেন না। যেটা চিন্তা ক’রেছেন সেটা শুরু করুন, আর যেটা শুরু ক’রেছেন সেটা চালিয়ে যান। মনে রাখবেন, নিজে’র চিন্তা-ভাবনা দিয়ে শুরু করা কোনো কাজ ভুল হলেও ভবিষ্যতে হয়ত সেটা আপনার কাজে লাগতে পারে অথবা সেটাও আপনাকে কোনো ভালো ফল দিতে পারে।

নিজেই নিজে’র বস হোন
নিজেকে কখনও ছোট মনে করবেন না। কেননা একটা কথা সবসময় মনে রাখবেন যে, পৃথিবীতে যারা বড় হয়েছে একদিন তারাও আপনার মত জায়গায় ছিল। আপনি যদি চেষ্টা করেন তাহলে আপনিও একদিন সেখানে পৌঁছতে পারবেন। আপনি যেখানেই কাজ করেন না কেন সবসময় মাথায় রাখবেন, আপনি আপনার বস। তাহলে সবসময় ভালো পারফরম্যান্স দিতে পারবেন।

প্রতিজ্ঞ এবং প্রত্যয়ী হোন
প্রতিজ্ঞা একটি মানুষকে উন্নতির শিখরে পৌঁছে দিতে পারে। প্রতিজ্ঞার সাথে আর একটি বিষয় দরকার সেটা হল প্রত্যয়ী হওয়া। যদি আপনি প্রতিজ্ঞ হোন এবং প্রত্যয়ীও হোন তাহলে আপনার কোনো কিছুই ব্য’র্থ হবেন না। জীবনে উন্নতির জন্য এই দু’টা জিনিস খুবই গু’রুত্বপূর্ণ।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নয়, জীবনই সেরা স্কুল
এই কথাটা বলার কারণ হল, স্কুল থেকে আপনি যেটা শিখছেন; সেটা অপরের জ্ঞান আপনি গ্রহণ করছেন। কিন্তু বাইরের বৃহৎ পরিসর থেকে আপনি যে জ্ঞান গ্রহণ করছেন এর থেকে বড় স্কুল হতে পারে না। তাই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে জীবনকেই বড় স্কুল বলা হয়েছে।

আশা হারাবেন না
কোনো কিছুতে হার মানলে কখনও আশা হারাবেন না। মনে রাখবেন, যেটা হয় সেটা সবসময় ভালোর জন্য হয়। যে বিষয়ে আপনি হার মেনেছেন, আশা না হারিয়ে পুনরায় চেষ্টা করুন। হয়ত এর চেয়েও ভালো কিছু আপনার জন্য অপেক্ষা করছে। আশা হারিয়ে ফেললে জীবনে অনেক পিছিয়ে পড়বেন।

স’মালোচনাকে স্বাগত জা’নান
যেখানে দেখবেন স’মালোচনা হচ্ছে সেখানে নিজেকে একটু অপেক্ষা করান। একটি স’মালোচনায় অনেক শ্রেণির অনেক ধ’রনের মানুষ থাকে। একজন থেকে অন্যজন অবশ্যই আলা’দা। সুতরাং আপনি যদি একটি স’মালোচনায় নিজেকে উপস্থিত করান তাহলে অনেক কিছু শিখতে পারবেন। মানুষের চিন্তা-ভাবনা স’ম্পর্কে জানতে পারবেন। একটি স’মালোচনা আপনার জন্য অনেক বড় একটি ভূমিকা পা’লন করে।

সাফল্যের হিসাব করুন
সাফল্য সবার জন্য নয়। সাফল্য অর্জন ক’রতে হলে চাই অদম্য সাহস আর প্রতিভা। নিজেকে ক’রতে হবে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ও প্রত্যয়ী। আপনি যখন কিছু শুরু করবেন, সবসময় সেটার সাফল্য নিয়ে ভাববেন। পরবর্তীতে সেটা যদি বিফলেও যায় হ’তাশ না হয়ে তার পেছনে লে’গে থাকুন এবং সাফল্যের জন্য অপেক্ষা করুন।

জীবনটা সহজ নয়
‘জীবনে উন্নতি করবো’- এটা শুধু মুখে বললেই উন্নতি চলে আসবে না। জীবনটা এত সহজ নয়। জীবনের প্রতিটা পদক্ষে’প অনেক ক’ঠিন। আপনাকে জীবনে উন্নতি ক’রতে হলে অনেক ক’ঠিন কিছুর স’ম্মুখীন হতে হবে। তবেই না উন্নতি আসবে। জীবনটা অনেক ক’ঠিন- এটা মেনে নিতে হবে।

তথ্যসূত্র : ইন্টারনেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *